জার্মানিতে আজ থেকে শোনা যাবে সুমধুর আজান

জার্মানির কোলন শহরের এহরেনফেল্ড এলাকায় অবস্থিত কেন্দ্রীয় মসজিদে আজ শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) থেকে মাইকে জুমার নামাজের আজান দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে শহর কর্তৃপক্ষ। এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) কোলন শহর কর্তৃপক্ষ ও জার্মানিতে বসবাসকারী তুরস্কের নাগরিকদের সংগঠন ‘ডিটিব’-এর মধ্যে একটি চুক্তি সই হয়। এ চুক্তির মধ্য দিয়ে মাইকে জুমার আজান দেওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। যেহেতু জার্মানিতে মাইকে আজান দেওয়া যায় না, তাই কোলন শহরের কর্তৃপক্ষ এক্ষেত্রে ব্যতিক্রমী সিদ্ধান্ত নিলো।

কর্তৃপক্ষের ভাষ্য, শহরের মুসলমানদের প্রতি সম্মান প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্যই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, চুক্তি অনুযায়ী প্রতি শুক্রবার দুপুর ১২টা থেকে বেলা ৩টার মধ্যে সর্বোচ্চ পাঁচ মিনিট আজান দিতে পারবেন মুয়াজ্জিন। তবে আজানের শব্দের মাত্রা ৬০ ডেসিবেলের মধ্যে সীমিত রাখতে হবে।

আপাতত এ চুক্তি একটি পাইলট প্রকল্প হিসেবে প্রাথমিকভাবে দুই বছর কার্যকর থাকবে। কোলন শহর কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে তুরস্কের নাগরিকদের ধর্মীয় সংগঠন ‘ডিটিব’। মসজিদ পরিচালনাকারী সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান আতসয় স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেছেন, আমরা খুব খুশি। এর মাধ্যমে এটি সবাই জানবে যে মুসলমানরা এখানে রয়েছে।

এছাড়া জার্মানির বর্তমান আইন অনুযায়ী, দেশটিতে ধর্মীয় রীতিনীতি পালনের স্বাধীনতা রয়েছে। আযানের অনুমতি দেওয়ার মাধ্যমে শহরের মুসলমানের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করা হয়েছে। কোলন সেন্ট্রাল মসজিদটি পরিচালনা করেন তুরস্কের নাগরিকদের ধর্মীয় সংগঠন ‘ডিটিব’।

জার্মানিতে নয়শরও বেশি মসজিদ পরিচালনা করে এ সংগঠনটি। ২০১৮ সালে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান জার্মানি সফরকালে কোলন সেন্ট্রাল মসজিদটি উদ্বোধন করেছিলেন। জার্মানিতে এ মুহূর্তে ৫০ লাখের বেশি মুসলমান বসবাস করছেন। যা মোট যা জনসংখ্যার প্রায় ছয় শতাংশ।

Leave a Comment