স্ত্রীর আবেদনের ৪ মাস পর কবর থেকে স্বামীর মরদেহ উত্তোলন, বেরিয়ে এলো লোমহর্ষক বর্ণনা

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে স্ত্রীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে দাফনের চারমাস পর কবর থেকে স্বামীর মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) সকালে প্রশাসনের উপস্থিতিতে মরদেহ উত্তোলন করা হয়।

এসময় কুমিল্লা সিআইডির পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম এবং চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মোহাম্মদ মেশকাতুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

মৃত ওই ব্যক্তির নাম আরিফ হোসেন (৩০)। তিনি ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১২ নম্বর চরদুখিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের চরচুন্নি পাটোয়ারী বাড়ির বাসিন্দা ছিলেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ডিসেম্বরে কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন আরিফ হোসেন। তবে তার মৃত্যু রহস্যজনক দাবি করে স্ত্রী ইরানি বেগম বাদী হয়ে কুমিল্লা কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করেন। পরে আদালত ইরানির আবেদন গ্রহণ করে পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ উত্তোলনের নির্দেশ দেন।

স্ত্রীর আবেদনের ৪ মাস পর কবর থেকে স্বামীর মরদেহ উত্তোলন

আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী ফরিদগঞ্জ উপজেলার আরিফের বাড়ির পারিবারিক কবরস্থান থেকে মরদেহ উত্তোলন করা হয়। পরে মরদেহটি পুনঃময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

আরিফের স্ত্রীর ইরানী আক্তারের দাবি, তার স্বামী আরিফকে মেরে ফেলা হয়েছে। তার মৃত্যু সড়ক দুর্ঘটনায় হয়নি।

এ ব্যাপারে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন এলে বোঝা যাবে তার মৃত্যু হত্যা নাকি সড়ক দুর্ঘটনায় হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

Leave a Comment