সপ্তাহজুড়ে চলবে বৃষ্টি? জেলায় জেলায় ভারী বর্ষণের সতর্কতা

বৃষ্টির (Rain) রেশ চলছেই শহরে। এ সপ্তাহের শুরু থেকেই বৃষ্টিমুখর আবহাওয়া (Weather) মাথায় নিয়েই দিন কেটেছে শহরের। সোম, মঙ্গল দু’দিনই বৃষ্টি হয়েছে। বুধবারে সকাল থেকে এর ব্যতিক্রম হয়নি। ভোর থেকেই কখনও ঝিরিঝিরি বৃষ্টি, কখনও আবার দমকা হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টিতে ভিজছে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ। এদিনও আজ সারাদিনই হালকা থেকে মাঝারী বৃষ্টিপাত হবে একাধিক জেলায়। ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তেমন নেই। কলকাতায় আজ মূলত মেঘলা আকাশ থাকবে। কয়েক পশলা হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। আজ সকাল থেকে কালো মেঘে ঢেকেছে আকাশ।

আরও পড়ুন, Anubrata Mondal: কলকাতার নামী বই প্রকাশনা সংস্থায় খাটত কেষ্টর টাকা, আয়করকে জানাল সিবিআই

ভোররাত থেকেই কলকাতায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে বলা হয়েছে, সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কিছুটা কমে ২৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়েছে। বৃষ্টির জেরে গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা অনেকটা কমে হয়েছিল ৩১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয়বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ থাকবে ৯৫ শতাংশ। আলিপুরে গত ২৪ ঘন্টায় বৃষ্টি হয়েছে ১২ মিলিমিটার ।

এদিকে দক্ষিণবঙ্গে এখন বৃষ্টির রেশ থাকতে পারে বেশ কিছুদিন। হাওয়া অফিস সূত্রের খবর, দিঘার উপরে এখনও মৌসুমী অক্ষরেখা রয়েছে। মৌসুমী অক্ষরেখার বিস্তার রয়েছে উপকূলীয় সুন্দরবন পর্যন্ত । আজও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে পূর্ব-পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনাতে। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের বাকি জেলাতেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এই সপ্তাহের বাকি দিনগুলিতে এই পরিস্থিতির খুব একটা পরিবর্তন হবে না বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

অন্যদিকে, উত্তরবঙ্গের সব জেলায় বৃষ্টির পরিমাণ কমবে আজ। বরং তাপমাত্রা বেশ কিছুটা বাড়বে। স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি থেকে পাঁচ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রা বাড়তে পারে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। পার্বত্য জেলায় বজ্রবিদ্যুৎসহ হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। মূলত দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি এই পাঁচ জেলায় বিক্ষিপ্তভাবে হালকা বৃষ্টি হবে।

মৌসম ভবনের তরফে জানান হয়েছে, পশ্চিমে তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি ক্রমশ সরে মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে অবস্থান করছে। শক্তি হারিয়ে গতকাল সুস্পষ্ট নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে । আজ আরও শক্তি হারিয়ে সাধারণ অক্ষরেখায পরিণত হবে। পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে আরও একটু এগিয়ে রাজস্থানের দিকে যাবে নিম্নচাপটি। মৌসুমী অক্ষরেখা রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশের সুস্পষ্ট নিম্নচাপের উপর দিয়ে সিদ্ধি, ডালটনগঞ্জ, দিঘা হয়ে উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টি হবে পূর্ব রাজস্থান এবং পশ্চিম রাজস্থানে। এছাড়াও ভারী বৃষ্টি হবে গুজরাট ঘাট পর্বতমালা এলাকা মধ্য মহারাষ্ট্র ওড়িশা হিমাচল প্রদেশ এবং আসাম মেঘালয় মনিপুর মিজোরাম ত্রিপুরা সহ উত্তর পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে। দক্ষিণ ভারতের বেশ কিছু রাজ্যে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। এর মধ্যে রয়েছে তামিলনাডু, পন্ডিচেরি এবং কেরল ও মাহে।

Leave a Comment